আন্তর্জাতিক     সংবাদ

আদিত্যনাথের প্রথম নির্দেশ

আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করতে হবে

নয়াদিল্লি প্রতিনিধি | ২১ মার্চ ২০১৭, ০০:৫৬  

ভারতের উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের প্রথম নির্দেশ, আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় কোনো রকম ঢিলেমি বরদাশত করা হবে না। গতকাল সোমবার প্রথম কর্মদিবসেই তিনি রাজ্য পুলিশের মহাপরিচালক জাভেদ আহমেদকে বলেন, কঠোর হাতে গুন্ডাগিরি বন্ধ করে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করতে হবে। রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি উন্নতির লক্ষ্যে ১৫ দিনের মধ্যেই পরিকল্পনা তৈরি করতে হবে।
রোববার রাতেই রাজ্যের এলাহাবাদে নিজের বাড়ির কাছেই আততায়ীর গুলিতে নিহত হন বহুজন সমাজ পার্টির নেতা মুহম্মদ শামি। পুলিশের মহাপরিচালককে মুখ্যমন্ত্রী আদিত্যনাথ বলেন, তাঁর সরকারের প্রথম কাজ রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা ঠিক রাখা। সেটা দ্রুত নিশ্চিত করা হোক।
মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়ে গত রোববার আদিত্যনাথ বলেছিলেন, দলের স্লোগান ‘সবকা সাথ সবকা বিকাশ’ই তাঁর সরকারের লক্ষ্য। গতকাল মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠকে তিনি বলেন, যে যে প্রতিশ্রুতি দিয়ে বিজেপি সরকারে এসেছে, সবই পূরণ করা হবে। বৈঠকের পর অন্যতম উপমুখ্যমন্ত্রী কেশব প্রসাদ মৌর্য সংবাদমাধ্যমকে জানান, প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী রাজ্যের কসাইখানাগুলো বন্ধ করা হবে। এ িনয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে আলোচনা হবে।
রোববার রাতে এলাহাবাদে দুটি কসাইখানা বন্ধ করে দেওয়া হয়। সরকারি সূত্র অনুযায়ী, ওই দুই কসাইখানা বেআইনিভাবে চলছিল। এই ফরমানে মাংস ব্যবসায়ীরা আতঙ্কিত। তাঁরা বলছেন, রাজ্যে গরুর মাংস নিষিদ্ধ বলে তাঁরা মহিষের মাংস বিক্রি করেন এবং আইন মেনেই তা করেন।
আদিত্যনাথ শপথ নিয়েই মন্ত্রিসভার সব সদস্যকে ১৫ দিনের মধ্যে আয় ও সম্পত্তির তালিকা জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। এই নির্দেশের মধ্য দিয়ে দৃশ্যত তিনি বোঝাতে চাইছেন, দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসন উপহার দেওয়াই তাঁর লক্ষ্য।
গেরুয়াধারী যোগী আদিত্যনাথ উত্তর প্রদেশের পূর্ব প্রান্তের গোরক্ষপুর থেকে পাঁচবার লোকসভায় নির্বাচিত হন। তিনি সেখানকার গোরক্ষনাথ মন্দিরের প্রধান পুরোহিত বা মহন্ত ছিলেন। কট্টর হিন্দুত্ববাদী নেতা হিসেবে তাঁর পরিচিতি। বারবার তাঁর ভাষণ বিতর্ক সৃষ্টি করেছে। এমন একজনকে মুখ্যমন্ত্রী বাছার জন্য বিজেপি নেতৃত্বকে সমালোচনার মধ্যে পড়তে হয়েছে।
সমালোচনার জবাবে বিজেপি মুখপাত্র নলিন কোহলি গতকাল বলেন, যাঁরা সমালোচনা করছেন তাঁরা ভুল প্রমাণিত হবেন। এই মহল একইভাবে নরেন্দ্র মোদিরও সমালোচনা করেছিল। বিজেপি নেতা ভেঙ্কাইয়া নাইডু বলেন, আদিত্যনাথ সবে দায়িত্ব নিয়েছেন। প্রথম দিন থেকেই তাঁর সমালোচনা করা ঠিক নয়।

 

পাঠকের মন্তব্য (০)

মন্তব্য করতে লগইন করুন