আন্তর্জাতিক     সংবাদ

রয়টার্স/ইপসোস যৌথ জরিপ

অবৈধ অভিবাসীদের বহিষ্কার চায় প্রায় অর্ধেক কানাডীয়

রয়টার্স | ২১ মার্চ ২০১৭, ০০:৫৩  

যুক্তরাষ্ট্র থেকে অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রম করে আসা আশ্রয়প্রার্থীদের বহিষ্কার করা উচিত বলে মনে করে কানাডার প্রায় অর্ধেক মানুষ। আর ৩৬ শতাংশ বলেছে, এসব অভিবাসীকে গ্রহণ করে তাদের শরণার্থী হিসেবে আবেদন করার সুযোগ দেওয়া উচিত। রয়টার্স/ইপসোসের যৌথ জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে।
জরিপে অংশ নেওয়া প্রতি ১০ জনের মধ্যে ৪ জন বলেছেন, সীমান্ত অতিক্রমকারীরা কানাডাকে ‘অনিরাপদ’ করে তুলবে। এটি জাস্টিন ট্রুডোর সরকারের জন্য একটি ‘রাজনৈতিক ঝুঁকি’ হিসেবে দেখা দিতে পারে। প্রায় ৪৮ শতাংশ কানাডীয় বলেছে, দেশটিতে বসবাসকারী অবৈধ অভিবাসীদের আরও বেশি হারে বহিষ্কার করা উচিত। আর ৪৬ শতাংশ কানাডীয় মনে করে, অবৈধ অভিবাসীদের এ স্রোত কানাডার নিরাপত্তার জন্য ‘ঝুঁকি’ নয়। ৩৭ শতাংশ বলেছে, এদের সামলাতে প্রধানমন্ত্রী ট্রুডো যে ব্যবস্থা নিয়েছেন, তা ঠিকই আছে।
প্রতিবেশী যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কঠোর অভিবাসনবিরোধী উদ্যোগের জেরে দেশটিতে থাকা অনেক অবৈধ অভিবাসী আশ্রয়ের সুযোগের প্রত্যাশায় সীমান্ত পেরিয়ে কানাডা যাচ্ছেন। আফ্রিকা ও মধ্যপ্রাচ্যের বংশোদ্ভূত হাজার হাজার আশ্রয়প্রার্থী গত কয়েক মাসে কানাডায় ঢুকেছে। এটি এখন কানাডায় একটি বিতর্কিত ইস্যুতে পরিণত হয়েছে। রয়টার্সের জরিপে অবৈধ অভিবাসীদের সঙ্গে কথা বলে দেখা গেছে, তাঁদের অনেকেই যুক্তরাষ্ট্রে বৈধভাবে বাস করতেন। কিন্তু মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কঠোর অভিবাসন নীতির আওতায় গ্রেপ্তার হওয়ার ভয়ে তাঁরা কানাডায় পালিয়ে এসেছেন।
কানাডায় বিপুলসংখ্যায় আইনি অভিবাসন ব্যবস্থার ব্যাপারে এক দশক ধরেই দ্বিদলীয় সমর্থন আছে। কিন্তু অবৈধ অভিবাসীদের স্রোত নিয়ে চাপে আছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। পার্লামেন্টের প্রতি অধিবেশনেই প্রশ্নের মুখে পড়ছেন তিনি। বামপন্থীরা চাইছে যেন আরও বেশিসংখ্যক অভিবাসী কানাডায় ঢুকতে পারে। অন্যদিকে ডানপন্থীদের বক্তব্য, এর ফলে দেশের নিরাপত্তা হুমকির মুখে পড়ছে।
অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রে একই সময়ে রয়টার্সের চালানো পৃথক জরিপে দেখা গেছে, অবৈধ অভিবাসীদের বহিষ্কারের হার বাড়াতে ট্রাম্পের নীতিকে সমর্থন করেছে ৫০ শতাংশ প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তি। সেদিক থেকে প্রতিবেশী দুই দেশ যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার নাগরিকদের মধ্যে মতের দিক থেকে বেশ মিল লক্ষ করা গেছে বলে মন্তব্য করেছে জরিপ পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান।

 

পাঠকের মন্তব্য (০)

মন্তব্য করতে লগইন করুন