আন্তর্জাতিক     সংবাদ

অবৈধদের ৩ মাস সময় দিল সৌদি আরব

অনলাইন ডেস্ক | ২০ মার্চ ২০১৭, ১৯:২৫

সৌদি আরবে অবৈধভাবে বসবাস করা অন্য দেশের নাগরিক ও শ্রমিকদের দেশ ছেড়ে যাওয়ার জন্য ৯০ দিনের সময় বেঁধে দিয়েছে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

আরব নিউজ ডটকমের খবরে বলা হয়, সৌদি সরকার প্রকাশিত এক গেজেটে বলা হয়, সৌদি আরবের উপপ্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যুবরাজ মুহাম্মদ বিন নাইফ গতকাল রোববার ‘এ নেশন উইদাউট ভায়োলেশনস’ নামের এক কর্মসূচির উদ্বোধন করে তিন মাসের এ ‘সাধারণ ক্ষমার’ ঘোষণা দেন। এই সময়ের মধ্যে নতুন করে কাজের অনুমতি নিয়ে বৈধ হওয়া যাবে। ২৯ মার্চ থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।

গেজেটে যুবরাজ মুহাম্মদ বিন নাইফ জানান, অনুমতি ছাড়া বসবাস, ইকামা (কাজের অনুমতিপত্র) ছাড়াই অবস্থান, সরকারি অনুমতি না নিয়ে কাজ করা এবং সৌদি আরবে অবৈধ অনুপ্রবেশের মতো অপরাধের ক্ষেত্রে ২৯ মার্চ থেকে সাধারণ ক্ষমা প্রযোজ্য হবে। যাঁরা এই সুযোগ নেবেন, তাঁদের কোনো শাস্তি ছাড়াই দেশে ফেরার সুযোগ দেওয়া হবে। এমনকি ভবিষ্যতে কাজ নিয়ে আবারও বৈধভাবে সৌদি আরবে আসার সুযোগ থাকবে তাঁদের।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মেজর জেনারেল মনসুর আল তুর্কি বলেন, সরকারের ১৯টি এজেন্সি এ ব্যাপারে কাজ করবে। তিনি বলেন, যাঁরা হজ, ওমরাহ কিংবা অন্য কাজে সৌদি আরব আসার পর ভিসার মেয়াদ ফুরিয়ে গেছে, তাঁরা এ সিদ্ধান্তের আওতায় পড়বেন।

আল তুর্কি বলেন, যাঁরা অধিবাসী কিন্তু আইডি কার্ড নেই, অথবা হজ ভিসায় এসে বাড়তি সময় ধরে সৌদি আরবে আছেন, তাঁরা পাসপোর্ট অফিসে যোগাযোগ করে কাগজপত্র বৈধ করে নেবেন। যাঁরা নিয়ম লঙ্ঘন করে আছেন, তাঁদের তথ্য দেওয়ার জন্য ৯৯৯ নম্বরে ফোন করতে দেশটির জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন আল তুর্কি।

সৌদি আরবের আইন মোতাবেক দেশটিতে অবৈধভাবে বসবাস এবং কাজ করা যেকোনো বিদেশি নাগরিক ধরা পড়লে তাঁদের জরিমানা, কারাগার বা উভয় শাস্তির মুখোমুখি হতে হয়।

পাঠকের মন্তব্য (১)

  • Najim Ahmed- KSA.

    Najim Ahmed- KSA.

    অবৈধরা যার যার দেশের মান হানী করছে। বাংলাদেশ সরকারকে অনুরোধ করবো এই ৩ মাসের মধ্যে সব অবৈধদেরকে ফিরিয়ে নেওয়া নিশিচত করা । কোন কারণে যদি কেউ থেকে যায় তাদের শাসতি নিশিত করা সরকারের দায়িত।
     
মন্তব্য করতে লগইন করুন