অর্থনীতি     সংবাদ

শুরু হলো তিন দিনের ইন্দো–বাংলা বাণিজ্য মেলা

গাড়িতে ছাড়, আছে খাদ্য সিমেন্টসহ নানা সামগ্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক | ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, ০০:০৯  

ভারত-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের উদ্যোগে রাজধানীর সোনারগঁাও হোটেলে গতকাল ইন্দো-বাংলা বাণিজ্য মেলা শুরু হয়েছে l প্রথম আলোরাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে শুরু হয়েছে তিন দিনের ইন্দো-বাংলা বাণিজ্য মেলা। আয়োজকেরা জানিয়েছেন, মেলায় দুই দেশের মালিকানাধীন ৩৬টি প্রতিষ্ঠানের স্টল ও প্যাভিলিয়ন রয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে এ মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়।

মেলায় অংশগ্রহণকারী একাধিক প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বাংলাদেশি একাধিক প্রতিষ্ঠান ভারতের বাজারে তাদের পণ্য রপ্তানি বাড়ানো ও পরিচিত করার উদ্দেশ্যে মেলায় অংশ নিয়েছে। আয়োজকেরা জানান, মেলা উপলক্ষে ভারতীয় দুটি ব্যবসায়ী সংগঠনের প্রতিনিধিদলও বাংলাদেশে এসেছে।

এদিকে মেলায় অংশ নেওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর কেউ কেউ বিশেষ ছাড়ও দিচ্ছে। ভারতীয় টাটা মোটরসের আলোচিত গাড়ি জেনেক্স ‘ন্যানো’তে দেওয়া হচ্ছে ৫০ হাজার টাকা ছাড়। ৯ লাখ ৯৫ হাজার টাকা দামের ন্যানো গাড়িটির মেলার মূল্য ৯ লাখ ৪৫ হাজার টাকা।

এ ছাড়া কেউ মাসিক কিস্তিতে গাড়িটি কিনতে চাইলে সেখানেও বিশেষ ছাড়ের ব্যবস্থা করেছে এ দেশে টাটা গাড়ির বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠান নিটল মোটরস। মেলায় নিটলের স্টলে দায়িত্ব পালনকারী কর্মকর্তারা জানান, কিস্তিতে কেউ গাড়িটি কিনতে চাইলে তার জন্য ডাউন পেমেন্টে ১ লাখ টাকা ছাড় দেওয়া হয়েছে। ১ লাখ ৯৫ হাজার টাকা ডাউন পেমেন্ট দিয়ে যে কেউ এ গাড়িটির মালিক হতে পারবেন। আর বাকি অর্থ ২৫ হাজার টাকা করে মাসিক কিস্তিতে পরিশোধের সুযোগ রয়েছে।

মেলায় গাড়ি ছাড়াও খাদ্যসামগ্রী, বিমা, সিমেন্ট, হারবাল সামগ্রী, স্যানিটারি, রং প্রস্তুত ও বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠানের নানা ধরনের পণ্য ও সেবা প্রদর্শন করা হচ্ছে।

সোনারগাঁও হোটেলের বলরুমে গতকাল সকালে তিন দিনের এ মেলার উদ্বোধন করেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। ইন্দো-বাংলাদেশ চেম্বার আব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (আইবিসিসিআই) আয়োজিত এ মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা, ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমাদ। এতে সভাপতিত্ব করেন আইবিসিসিআইয়ের সভাপতি তাসকিন আহমেদ। বক্তব্য দেন আইবিসিসিআইয়ের সহসভাপতি দেওয়ান সুলতান আহমেদ, স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার বাংলাদেশ প্রধান অভিজিৎ চক্রবর্তী প্রমুখ।

মেলায় অংশ নিয়েছে বাংলাদেশি সিমেন্ট উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান এমআই সিমেন্ট (ক্রাউন)। প্রতিষ্ঠানটি দীর্ঘদিন ধরে ভারতের সেভেন সিস্টার খ্যাত সাত অঙ্গরাজ্যে সিমেন্ট রপ্তানি করছে। প্রতিষ্ঠানটির সহযোগী ব্যবস্থাপক ফজলুর রহমান জানান, প্রতি মাসে ৭ থেকে ৮ হাজার টন সিমেন্ট ভারতে রপ্তানি করছে ক্রাউন। প্রতিষ্ঠানটি ক্রাউন আইজোনিল নামে নতুন একটি পণ্য বাজারে এনেছে। এটির মাধ্যমে ঝড়-বৃষ্টি-রোদ ও শেওলা থেকে বাড়ির দেয়ালকে অক্ষত রাখা যায়। নতুন এই পণ্যটির পাশাপাশি ক্রাউন রেডিমিক্স ও সিমেন্টের প্রদর্শনী করা হচ্ছে প্রতিষ্ঠানটির স্টলে।

ফ্রেশ ব্র্যান্ডের সিমেন্ট প্রস্তুতকারক মেঘনা সিমেন্টের প্রধান বিপণন কর্মকর্তা খোরশেদ আলম বলেন, ভারতের বাজারে প্রতি মাসে গড়ে দেড় হাজার টন সিমেন্ট রপ্তানি করে তাঁর প্রতিষ্ঠান। রপ্তানির পরিমাণ বাড়ানোর চেষ্টা চালাচ্ছে মেঘনা সিমেন্ট। খোরশেদ আলম জানান, কিছু প্রতিবন্ধকতার কারণে চাহিদা থাকার পরও রপ্তানি বাড়ানো সম্ভব হচ্ছে না।

আয়োজকেরা জানান, কাল শনিবার তিন দিনের এ মেলা শেষ হবে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত এটি সাধারণের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। মেলার মূল স্পনসর হিসেবে রয়েছে স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়া।

পাঠকের মন্তব্য (০)

মন্তব্য করতে লগইন করুন