বাংলাদেশ     সংবাদ

ব্যালিস্টিক পরীক্ষার প্রতিবেদন আদালতে

সাংবাদিকের মাথার গুলির লেডবলটি মেয়রের শটগানের

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি | ২০ মার্চ ২০১৭, ১৪:০০

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষকালে নিহত সাংবাদিক আবদুল হাকিম শিমুলের মাথায় পাওয়া গুলির লেডবলটি (সিসার বল) পৌরমেয়র হালিমুল হক মিরুর শটগানের। আদালতে জমা দেওয়া পৌর মেয়রের শটগান ও সাংবাদিকের মাথার গুলির লেডবলের ব্যালিস্টিক পরীক্ষার প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে।

শাহজাদপুর জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে ব্যালিস্টিক পরীক্ষার প্রতিবেদনটি ৬ মার্চ নথিভুক্ত করা হয়েছে বলে আজ সোমবার জানান ওই আদালত পুলিশের জেনারেল রেজিস্ট্রেশন অফিসার (জিআরও) মো. আতাউর রহমান। তিনি বলেন, ঢাকার পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) কার্যালয় থেকে প্রতিবেদনটি পাঠানো হয়। প্রতিবেদনে লেডবলটি পৌরমেয়র হালিমুল হক মিরুর শটগানের বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শাহজাদপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মনিরুল ইসলাম আজ বলেন, সাংবাদিকের মাথা থেকে পাওয়া গুলির লেডবলটি মেয়রের ব্যবহৃত লাইসেন্স করা শটগানের বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। বিষয়টি আদালতের আইনজীবীদের কাছ থেকে জানা গেছে। পরে বিস্তারিত জানা যাবে।

ব্যালিস্টিক পরীক্ষার জন্য গত ৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকার সিআইডিতে নমুনা পাঠানো হয়েছিল।

গত ২ ফেব্রুয়ারি শাহজাদপুর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি বিজয় মাহমুদকে মারধর করার জের ধরে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষ হয়। এই সংঘর্ষের সময় পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে দৈনিক সমকালের শাহজাদপুর প্রতিনিধি আবদুল হাকিম গুলিবিদ্ধ হন। পরের দিন তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এ ঘটনায় নিহত সাংবাদিকের স্ত্রী নুরুননাহার খাতুন বাদী হয়ে পৌরমেয়র হালিমুল হকসহ ১৮ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরও ২০-২৫ জনকে আসামি করে শাহজাদপুর থানায় মামলা করেন।

পাঠকের মন্তব্য (২)

  • hidden

    More than 200 innocent people are arrested in this case, what about them? Why they are in lock up still?
     
  • hidden

    rupom/saed/mir mofa/andaa khan/probaaal can tell us more about it
     
মন্তব্য করতে লগইন করুন