বাংলাদেশ     সংবাদ

ষড়যন্ত্রকারীদের খোঁজার অগ্রগতি জানাতে সময় পেল রাষ্ট্রপক্ষ

নিজস্ব প্রতিবেদক | ২০ মার্চ ২০১৭, ১৩:১৭

পদ্মা সেতুর দুর্নীতি নিয়ে মিথ্যা গল্প সৃষ্টির নেপথ্যে থেকে ষড়যন্ত্রে যুক্ত প্রকৃত অপরাধীদের খুঁজে বের করতে কমিশন বা কমিটি গঠন বিষয়ে অগ্রগতি জানাতে সময় পেয়েছে রাষ্ট্রপক্ষ। আগামী ৯ মের মধ্যে এ বিষয়ে অগ্রগতি জানাতে বলা হয়েছে।

আজ সোমবার বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই দিন ধার্য করেন।

অগ্রগতি জানাতে রাষ্ট্রপক্ষ আট সপ্তাহ সময় চেয়ে আবেদন জানালে এর শুনানি নিয়ে আদালত এই সময় দেন।

হক ১৪ ফেব্রুয়ারি ‘ইউনূসের ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান, বিচার দাবি’ শিরোনামে জাতীয় দৈনিক ইনকিলাবে একটি প্রতিবেদন ছাপা হয়। এটিসহ কয়েকটি দৈনিকের প্রতিবেদন নজরে এলে আদালত স্বতঃপ্রণোদিত রুল দেন। রুলে পদ্মা সেতুর দুর্নীতি নিয়ে মিথ্যা গল্প সৃষ্টির নেপথ্যে থেকে ষড়যন্ত্রে যুক্ত প্রকৃত অপরাধীদের খুঁজে বের করতে কমিশন বা কমিটি গঠনের কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চান আদালত। একই সঙ্গে তাঁদের কেন বিচারের মুখোমুখি করা হবে না, তাও জানতে চাওয়া হয়। কমিটি বা কমিশন গঠন ও কী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, ৩০ দিনের মধ্যে অগ্রগতি জানাতে বলেন হাইকোর্ট। মন্ত্রিপরিষদ সচিবকে এটি জানাতে বলা হয়।

 

পাঠকের মন্তব্য (৩)

  • Md. Golam mamun Chy

    Md. Golam mamun Chy

    পদ্মা সেতুর দুর্নীতি নিয়ে মিথ্যা গল্প সৃষ্টির নেপথ্যে থেকে ষড়যন্ত্রে যুক্ত প্রকৃত অপরাধীদের খুঁজে বের করতেই হবে। তা না হলে বার বার দেশকে পিছিয়ে দিতে ওরা চেস্টা চালিয়ে যাবে।ওরা ১৬ কোটি মানুশের সাথে বেঈমানী করেছে।
     
  • তন্ময়

    তন্ময়

    তাহলে বিশ্বব্যাংক কেন কানাডিয়ান ইন্জিনিয়ারিং প্রতিষ্টান এসএনসি-লাভালিনকে দশবছরের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যেটি বিশ্বব্যাংকের সেটেলমেন্ট ইতিহাসে এযাবতকালের সবচেয়ে বড় শাস্তি! এ নিষেধাজ্ঞার আওতায় এসএনসি-লাভালিন শুধু বিশ্বব্যাংক নয়, অন্যান্য বহুজাতিক উন্নয়ন ব্যাংকের সাথেও কাজ করতে পারবেনা। বিশ্বব্যাংক কারো রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ নয় কিংবা কোন রাজনৈতিক সরকারের হাতের লাঠিও নয়। এডিবি, আইডিবি, জাইকার মত প্রতিষ্টানও এ অভিযোগের পক্ষে সরে দাঁড়িয়েছিল। কানাডিয়ান আদালতের কাছে অয়্যারটেপ [ফোনে আড়ি পাতা] সাক্ষ্য হিসেবে গ্রহণযোগ্য ছিলনা বলেই মামলাটি শেষ হয়ে যায়। অপরদিকে আদালতের বাইরে বিশ্বব্যাংক ও এসএনসি-লাভালিনের মধ্যে সালিশের মাধ্যমে বিষয়টি নিষ্পত্তি হয়েছিল বলে আদালতে অধিকতর পর্যায়ে গড়ায়নি। উল্লেখ্য এই সালিশ নিষ্পত্তির আওতায় এসএনসি-লাভালিন এখন দশবছরের নিষেধাজ্ঞা ভোগ করতেছে।
     
  • শেখ আলিমুল হক

    শেখ আলিমুল হক

    অবশ্যই ষড়যন্ত্রকারীদের খুঁজে বের করে কাঠগড়ায় দাঁড় করানো উচিৎ
     
মন্তব্য করতে লগইন করুন